1. mdkawsar8297@gmail.com : দ্যা ঢাকা প্রেস : দ্যা ঢাকা প্রেস
  2. taskin.anas@gmail.com : দ্যা ঢাকা প্রেস : দ্যা ঢাকা প্রেস
মেয়েকে ধরিয়ে দিতে জাতীয় দৈনিকে বিজ্ঞাপন দিয়ে পুরস্কার ঘোষণা — The Dhaka Press
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৪২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ

মেয়েকে ধরিয়ে দিতে জাতীয় দৈনিকে বিজ্ঞাপন দিয়ে পুরস্কার ঘোষণা

  • শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১১ বার পড়া হয়েছে

টাঙ্গাইলের সখীপুরে মেয়েকে ধরিয়ে দিতে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়ে পুরস্কার ঘোষণা করেছেন আবদুল মান্নান নামের এক বাবা। শুক্রবার একটি জাতীয় দৈনিকে মেয়ের ছবিসহ একটি বিজ্ঞাপন ছেপেছেন ওই বাবা। এর আগে গত বুধবার মেয়ের বিরুদ্ধে সখীপুর থানায় প্রতারণার অভিযোগও করেন তিনি। বাবার অভিযোগ,তার চিকিৎসার জন্য জমি বিক্রির পাঁচ লাখ টাকা নিয়ে উধাও হয়েছেন মেয়ে। শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) প্রথম আলো পত্রিকায় প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়। মেয়েকে ধরিয়ে দিতে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়েছেন বাবা। ছবি : সংগৃহীত প্রতিবেদনে আরও জানা যায়, থানায় করা অভিযোগে বাবা আবদুল মান্নান দাবি করেছেন, তিনি পেশায় ঘোড়ার গাড়ির চালক। বয়স ৬০ বছরের বেশি। বছরখানেক ধরে নানা রোগে ভোগায় তিনি গাড়িও চালাতে পারছেন না। সম্প্রতি তিনি নিজের চিকিৎসার জন্য পাঁচ লাখ টাকায় বাড়ি বিক্রি করেন। তার চার মেয়ে ও এক ছেলে। একমাত্র ছেলে বিয়ে করে আলাদা সংসার করছেন। চার মেয়েকেও বিয়ে দিয়েছেন। ৯ সেপ্টেম্বর চায়না আক্তার নামে তার ছোট মেয়ে তাকে সঙ্গে নিয়ে চিকিৎসার ওই পাঁচ লাখ টাকা ব্যাংকে জমা রাখতে যান। উপজেলার নলুয়া বাজারে অবস্থিত ব্যাংকে তাকে বসিয়ে রেখে চায়না টাকাসহ তার স্বামীকে নিয়ে সটকে পড়েন। তিনি মেয়ে ও জামাতার বাড়িতে গিয়ে তাদের খোঁজ পাননি। অবশেষে ১৬ সেপ্টেম্বর বুধবার তিনি সখীপুর থানায় মেয়ের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ করেন। শুক্রবার একটি জাতীয় দৈনিকে মেয়ের ছবিসহ ‘ধরিয়ে দিন, পুরস্কার দেওয়া হবে’ শিরোনামে একটি বিজ্ঞাপন প্রকাশ করেন আবদুল মান্নান। তাঁর বাড়ি উপজেলার ঘেচুয়া গ্রামে। আবদুল মান্নানের ভাষ্য, ‘মেয়েটি আমার সঙ্গে প্রতারণা করেছে। চিকিৎসার জন্য বাড়ি বিক্রির পাঁচ লাখ টাকা নিয়ে উধাও হয়ে গেছে। ওই টাকা না হলে আমাকে চিকিৎসার অভাবে ধুকে ধুকে মরতে হবে। আমি মেয়েকে বিশ্বাস করে ভুল করেছিলাম। আমার মেয়েকে পুলিশ অথবা যেকেউ ধরিয়ে দিতে পারলে তাকে উপযুক্ত পুরস্কার দেওয়া হবে।’ সখীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আসাদুজ্জামান বলেন,‘পত্রিকায় বিজ্ঞাপন প্রকাশের বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে বুধবার মেয়েকে আসামি করে বাবা একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগের তদন্ত চলছে। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় মেয়েটিকে গ্রেপ্তার ও টাকা উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।’

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

office

34 nawab mansion dhanmondi dhaka

Contact

Email: tdpnewsroom@gmail.com

contact:01979899122

© All rights reserved 2020 thedhakapress

প্রযুক্তি ও কারিগরি সহায়তাঃ WhatHappen